Advertisements

বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্ট নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২২-৮ম / এইচএসসি / এইচএসসি পাশে

বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্ট নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২২-৮ম / এইচএসসি / এইচএসসি পাশে Supreme Court Job আসসালামুয়ালাইকুম প্রতিদিনের নেয়ায় আজকেও নতুন সরকারি চাকরির তথা চলমান সরকারি চাকরির নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছে । আপনি যদি চাকরিপ্রত্যাশী হন আজকের নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি টি আপনার জন্য ।

Advertisements

সম্মানিত সুধী আপনি কি বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্ট নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি এই নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি খুঁজছেন ? এই নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি সকল জেলা বা নির্ধারিত জেলা থেকে অনেক শূন্য পদে লোক নিয়োগ দিবে । যেখানে স্নাতক পাস এসএসসি পাস এইচএসসি পাস ডিপ্লোমা পাস এবং স্নাতক পাশের লোক নিয়োগ দেয়া হতে পারে। এই নিয়োগ বিজ্ঞপ্তির বিস্তারিত তথ্য নিচে দেওয়া রয়েছে ।

বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্ট নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি এই নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি টি আজ কর্তৃপক্ষ তাদের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে প্রকাশ করেছে । এই নিয়োগ বিজ্ঞপ্তির পদের নাম পদসংখ্যা বেতন এবং শিক্ষাগত যোগ্যতা ও অভিজ্ঞতা আর কি কি সুযোগ সুবিধা থাকছে, এছাড়াও এই পদে আবেদন করার জন্য কত টাকা পিস দিতে হবে । নাকি দিতে হবেনা । সব বিষয়ে নিচে দেওয়া থাকবে । দয়া করে ধৈর্য সহকারে পোস্টটি পড়ে তারপর আবেদন করুন ।

বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্ট নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি এই নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি টি বাংলাদেশের সেরা কিছু নিয়োগ বিজ্ঞপ্তির মধ্যে একটি তাই এই নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি টি সম্পূর্ণ ভালোভাবে পড়ে তারপর আবেদন করুন । ভালোভাবে পড়ার জন্য বলতেছি কারণ অনেক সময় আপনার নিজের যোগ্যতা অনুযায়ী পদ থাকলেও তাড়াহুড়ার কারণে হারিয়ে ফেলেন ।

বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্ট নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি এই নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি টি পড়ার সময় আপনার পড়ালেখার বা আপনার যোগ্যতা অনুযায়ী কোন পদের নাম উল্লেখ আছে কিনা সেটি ভালোভাবে লক্ষ্য করে দেখুন এবং কি কি পদ পদের নাম বিস্তারিত জেনে নিন ।

বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্ট নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২২ প্রকাশ করা হয়েছে । এখানে আপনারা ৮ম / এইচএসসি / এইচএসসি পাশে বাংলাদেশের সকল জেলা থেকে আবেদন করতে পারবেন । এই সার্কুলারে শুধুমাত্র ০৮টি পদে লোক নিয়োগ করা হবে । উক্ত প্রতিষ্ঠানটি জানিয়েছে যে, এই ০৮টি পদে ৭৩ জন লোক নিয়োগ করা হবে ।

প্রতিষ্ঠানের নাম : বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্ট ।

পদের নাম : স্টেনোগ্রাফার ।

পদের সংখ্যা : ০৩ জন ।

বেতন : ১১,০০০-২৬,৫৯০/- টাকা ।

শিক্ষাগত যোগ্যতা ও অভিজ্ঞতা : উচ্চমাধ্যমিক / সমমানের ডিগ্রি । ইংরেজি ও বাংলায় টাইপিং এর প্রতি মিনিটে যথাক্রমে শব্দের গতি ৩০ ও ২৫ শব্দের গতি এবং ইংরেজি ও বাংলা সাঁটলিপিতে প্রতি মিনিটে যথাক্রমে ১০০ ও ৭০ শব্দের গতি থাকতে হবে ।

পদের নাম : কমিউনিটি হেলথ কেয়ার প্রোভাইডার ( সিএইচপিসি ) ।

পদের সংখ্যা : ০৬ জন ।

বেতন : ১০,২০০-২৪,৬৮০/- টাকা ।

শিক্ষাগত যোগ্যতা ও অভিজ্ঞতা : উচ্চমাধ্যমিক / সমমানের ডিগ্রি । ইংরেজি ও বাংলায় টাইপিং এর প্রতি মিনিটে যথাক্রমে শব্দের গতি ৩০ ও ২৫ শব্দের গতি এবং ইংরেজি ও বাংলা সাঁটলিপিতে প্রতি মিনিটে যথাক্রমে ৭০ ও ৪৫ শব্দের গতি থাকতে হবে ।

পদের নাম : স্টপনোটাইপিস্ট কাম কম্পিউটার অপারেটর ।

পদের সংখ্যা : ০১ জন ।

বেতন : ১০,২০০-২৪,৬৮০/- টাকা ।

শিক্ষাগত যোগ্যতা ও অভিজ্ঞতা : উচ্চমাধ্যমিক / সমমানের ডিগ্রি । ইংরেজি ও বাংলায় টাইপিং এর প্রতি মিনিটে যথাক্রমে শব্দের গতি ৩০ ও ২৫ শব্দের গতি এবং ইংরেজি ও বাংলা সাঁটলিপিতে প্রতি মিনিটে যথাক্রমে ১০০ ও ৭০ শব্দের গতি থাকতে হবে ।

পদের নাম : সাঁট মুদ্রাক্ষরিক / কম্পিউটার অপারেটর ।

পদের সংখ্যা : ০১ জন ।

বেতন : ১০,২০০-২৪,৬৮০/- টাকা ।

শিক্ষাগত যোগ্যতা ও অভিজ্ঞতা : উচ্চমাধ্যমিক / সমমানের ডিগ্রি । ইংরেজি ও বাংলায় টাইপিং এর প্রতি মিনিটে যথাক্রমে শব্দের গতি ৩০ ও ২৫ শব্দের গতি এবং ইংরেজি ও বাংলা সাঁটলিপিতে প্রতি মিনিটে যথাক্রমে ১০০ ও ৭০ শব্দের গতি থাকতে হবে ।

পদের নাম : ডাটা এন্ট্রি কন্ট্রোল অপারেটর ।

পদের সংখ্যা : ০৩ জন ।

বেতন বা সেলারি : ৯,৩০০-২২,৪৯০/- টাকা ।

শিক্ষাগত যোগ্যতা ও অভিজ্ঞতা : বিজ্ঞান বিভাগে উচ্চমাধ্যমিক / সমমানের ডিগ্রি ।

পদের নাম : মুদ্রাক্ষর তথা অফিস সহকারী ।

পদের সংখ্যা : ০৬ জন ।

বেতন : ৯,৩০০-২২,৪৯০/- টাকা ।

শিক্ষাগত যোগ্যতা ও অভিজ্ঞতা : উচ্চমাধ্যমিক / সমমানের ডিগ্রি । কম্পিউটার কম্পোজে প্রতি মিনিটে বাংলায় ২০ শব্দ এবং ইংরেজিতে ২০ শব্দের থাকতে হবে ।

পদের নাম : অফিস সহকারী কাম কম্পিউটার মুদ্রাক্ষরিক ।

পদের সংখ্যা : ০৪ জন ।

বেতন : ৯,৩০০-২২,৪৯০/- টাকা ।

শিক্ষাগত যোগ্যতা ও অভিজ্ঞতা : উচ্চমাধ্যমিক / সমমানের ডিগ্রি । কম্পিউটার কম্পোজে প্রতি মিনিটে বাংলায় ২০ শব্দ এবং ইংরেজিতে ২০ শব্দের থাকতে হবে ।

পদের নাম : ফটোস্ট্যাট মেশিন অপারেটর ।

পদের সংখ্যা : ০১ জন ।

বেতন : ৯,৩০০-২২,৪৯০/- টাকা ।

শিক্ষাগত যোগ্যতা ও অভিজ্ঞতা : মাধ্যমিক / সমমানের ডিগ্রি । ফটোস্ট্যাট মেশিন চালনার দক্ষতা থাকতে হবে ।

পদের নাম : অফিস সহায়ক / এম এল এস এস ।

পদের সংখ্যা : ৪৮ জন ।

বেতন : ৮,২৫০-২০০,১০/- টাকা ।

শিক্ষাগত যোগ্যতা ও অভিজ্ঞতা : অষ্টম শ্রেণি পাস / সমমানের ডিগ্রি ।

বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্ট নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২২

নিম্নবর্ণিত শর্তাবলি আবেদন ফরম পূরণ এবং পরীক্ষায় অংশ গ্রহণের ক্ষেত্রে অবশ্যই অনুসরণ করতে হবে,আবেদনপত্রে অবশ্যই বাংলাদেশের নাগরিক হতে হবে ।

উল্লিখিত পদে আবেদন করার মাধ্যম নিম্নে দেওয়া হলো

আবেদনের শেষ তারিখ : ১২ য়ে মে, ২০২২ ।

আবেদনের মাধ্যম : ডাকযোগে / কুরিয়ারে ।

ওয়েবসাইট

বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্ট আবেদনের ঠিকানা : নির্ধারিত ফরমে আবেদনপত্র ও দুই কপি প্রবেশপত্র এবং মুক্তিযুদ্ধ অন্যান্য কোটায় আবেদনকারী প্রার্থীদের নির্ধারিত ফরমে অতিরিক্ত তথ্যাদি স্বহস্তে পূরণ করে আগামী ১২/০৫/২০২২ খ্রি. তারিখের মধ্যে অফিস চলাকালীন সময়ে সাধারণ ও সংস্থাপন শাখা, কক্ষ নং -১১২, বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্ট, হাইকোর্ট বিভাগ, ঢাকা-১০০০ বরাবরে ডাকযোগে, কুরিয়ার সার্ভিসের মাধ্যমে অথবা সরাসরি পৌঁছাতে হবে । অথবা উদ্দীপকে উল্লিখিত বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের ওয়েবসাইট ডাউনলোডকৃত আবেদনপত্রের নির্ধারিত ফরম ও প্রবেশপত্র অথবা উক্ত ডাউনলোডকৃত ফরম / প্রবেশপত্রর ফটোকপি ব্যবহার করে আবেদন করা যাবে ।

বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্ট নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২২-৮ম / এইচএসসি / এইচএসসি পাশে
বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্ট নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২২-৮ম / এইচএসসি / এইচএসসি পাশে

চাকরি পেতে বাড়তি যোগ্যতা কি লাগে?

বিদেশি ভাষায় দক্ষতা

আপনি যদি বাংলা ছাড়া অন্য দু-একটা ভাষায় কথা বলতে পারেন তাহলে বাংলাদেশে আপনার প্রচুর নাম। আপনি বাংলাদেশি কম্পানি ছাড়াও বিভিন্ন বৈদেশিক কোম্পানি তো আপনি চাকরি করতে পারবেন। এবং ভবিষ্যতে কোনো এক সময় আপনাকে প্রমোশনে দেশের বাইরে বদলি হওয়ার সুযোগ আসতে পারে। প্রত্যেক বড় বড় কোম্পানির যারা বিদেশিদের সাথে কাজ কর্ম করে তাদের প্রতিষ্ঠান চাই বিভিন্ন ভাষায় কথা বলতে পারে এমন কর্মী । যার দরুন আপনি পড়ালেখার পাশাপাশি যদি কোন এক ভাষায় দক্ষ হয়ে যান তাহলে আপনার চাকরি পাওয়া 100%

Also Read…

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দক্ষতা

আগেই বলে রাখি এটা অপশনাল, বর্তমান যুগে ডিজিটাল যুগ তাই ডিজিটালি সবার উপস্থিতি ভালো থাকাটা জরুরী প্রত্যেক কোম্পানি চায় বিভিন্ন পর্যায়ে তাদের পরিচিতি বাড়ুক। আপনার যদি বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়ার একাউন্টে যদি পরিচিতি ভালো থাকে সে ক্ষেত্রে এই ধরনের দক্ষতা ভর্তির যোগ্যতা হিসেবে বিবেচনা করেন নিয়োগকর্তারা

বিশেষ দ্রষ্টব্য ; আমি আগেই বলেছি এটা অপশনাল এই কারনে বলেছি যে আপনি যদি প্রতিষ্ঠান কাজ ব্যতীত সারাদিন সোশ্যাল মিডিয়া নিয়ে বসে থাকেন তাহলে চাকরি হারাবেন ।

প্রোগ্রামিংয়ের সম্বন্ধে ধারণা

একটা বিষয় সবসময় ধারনা রাখবেন যে বর্তমান যুগ ডিজিটাল যুগ আপনাকে যুগের সাথে তাল মিলিয়ে এগোতে হবে। যারা বিভিন্ন অফিসে চাকরি করার চিন্তাভাবনা করে থাকে তারা আর যাই হোক না কেন কম্পিউটারের বেসিক শিখে নে । কিন্তু এখানে আরেকটি ভুল তারা করে সেটা হচ্ছে কম্পিউটারের বেসিক এর সাথে সাথে যদি তারা প্রোগ্রামিং এর কিছু শিখে নেয় মানে আর যাইহোক যদি কোডিং সম্বন্ধে শিখে নিতে পারেন তাহলে চাকরির ক্ষেত্রে আপনাকে একধাপ এগিয়ে নিয়ে যাবে ।

তথ্য বিশ্লেষণ ডাটা এনালাইসিস

বর্তমান বাজারে দক্ষ তথ্য বিশ্লেষণ ও ডাটা এনালাইসিস এর প্রচুর ডিমান্ড রয়েছে আপনি চাইলে পড়ালেখার পাশাপাশি এই ধরনের কাজ শিখে নিতে পারেন।

সমস্যা সমাধানের সিদ্ধান্ত

সারা বিশ্বের যতই বড় এবং যতই ছোট কম্পানী থাকুক না কেন প্রত্যেক কোম্পানিতে প্রতিনিয়ত সমস্যা দেখা যায় এই সমস্যা সমাধানকারি হিসেবে নিজেকে গড়ে তুলতে হবে। যেন প্রতিষ্ঠান ছোট-বড় যে কোন সমস্যাটা আপনি সমাধান করে দিতে পারেন। কিভাবে এই কাজ শিখবেন তাইতো যদি আপনার কোন একটি নির্দিষ্ট প্রতিষ্ঠানের প্রতি আপনার ধারনা থাকে তাহলে ওই প্রতিষ্ঠানের সম্বন্ধে রিচার্জ করা শুরু করুন ।

লিখতে জানা এবং ভালো বলতে পারা

আমাদের প্রত্যেকের একটি সমস্যা থাকে সেটি হচ্ছে কারো সামনে কথা বলতে গেলে মুখ দিয়ে কথা বের হয় না এবং কথা বলার সময় অনেক বেজে শুনে কথা বলতে হয়। এটি আমাদের দুর করতে হবে। সবার সামনে সাহস করে কথা বলতে পারার যোগ্যতা অর্জন করতে হবে এবং অফিসে ও যেখানে হোক না কেন বক্তব্য দেওয়ার অভ্যাস গড়ে তুলতে হবে। একই লেখার ক্ষেত্রে বিভিন্ন ধরনের বাংলা ইংরেজি এবং আরো কয়েকটি ভাষায় লিখতে পারার অভ্যাস গড়ে তুলতে হবে। দেশী-বিদেশী যত ধরনের মেইল খুব সেগুলার রিপ্লাই দিতে পারা থেকে শুরু করে সব বিষয়ে দক্ষতা অর্জন করতে হবে ।

চাকরির ইন্টারভিউ দেওয়ার সময় কি কি বিষয়ে গুরুত্ব দিতে হবে

আপনি যদি প্রথম চাকরির ইন্টারভিউ দিতে চান তাহলে প্রথমে আপনার যে বিষয়ে অনেক গুরুত্ব দিতে হবে সেটি হচ্ছে আপনার মাথার চুল ছোট করে রাখা, এবং পোশাক ফরমাল পোশাক পড়ে যাওয়া, এবং ক্লিন শেভিং করা থাকা, মেয়েদের ক্ষেত্রে ভালো ফরমাল পোশাক এবং শুধুমাত্র চুল ছেড়ে না রেখে পনিটেইল করে বেড়ে গেলে ভাল দেখাবে ।

ইন্টারভিউ শুরু হওয়ার পর

যদি ইন্টারভিউয়ে শুরু হয় তাহলে প্রথমে ঢোকার সময় অনুমতি নিয়ে ঢুকে সালাম দিবেন । আর বেশি চালাকি করবেন না। কথা বলার আগে বা প্রশ্ন করার মধ্যে উত্তর দিয়ে দিবেন না প্রশ্ন করা শেষ হলে তারপর সুন্দরভাবে উত্তর দিবেন। ইন্টারভিউ দেওয়ার সময় সবারই মনে অনেক ভয় থাকে যে আমার কোথাও ভুল হবে কিনা আমি ইন্টারভিউতে পাশ করব কিনা এইসব কিছু মাথার মধ্যে নিয়ে ইন্টারভিউ দিতে যাবেন না। তাহলে টেনশনের কারণে আপনি ভালভাবে ইন্টারভিউ দিতে পারবেন না। যার কারণে আপনি ইন্টারভিউ দেওয়ার সময় এইসব চিন্তা ভাবনা থেকে দূরে থাকবেন ।

আর আরেকটি কথা ইন্টারভিউ দেওয়ার সময় অফিসে ঢোকার পরে দাঁড়িয়ে থাকবেন সাথে সাথেই গিয়ে বসে পড়বেন না। দাঁড়িয়ে থাকার পর ইন্টারভিউর কর্মকর্তা-কর্মচারী যদি বলে বসেন তারপর বসবেন। আর বসার সময় আপনি যদি মুসলমান হয়ে থাকেন তাহলে বিসমিল্লাহ বলে বসবেন ।

আর চেহারা এমন ভাবে বুঝবেন যে বুক চওড়া করে মানে সাহসীরা যেভাবে বসে সেভাবে বসবেন। হাত-পা নড়াচড়া করবেন না ।

ইন্টারভিউতে যাওয়ার আগে আপনাকে আরেকটি বিষয়ে ধারণা থাকতে হবে সেটি হচ্ছে আপনি যে কোম্পানিতে চাকরির ইন্টারভিউ দিতে যাচ্ছেন সে কোম্পানি নিয়ে আগে একটু ভালোভাবে জেনে নিবেন মানে এই কোম্পানির প্রধান কর্মকর্তাকে এবং এ কোম্পানির বিভিন্ন খুঁটিনাটি বিষয় এবং এই কোম্পানির পরবর্তী মিশন কি ।

যে আপনার ইন্টারভিউ নিবেন তার সম্বন্ধে জানার চেষ্টা করুন তার সোশ্যাল মিডিয়া বা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তার উপস্থিতি কিরকম। এসব বিষয়ে ধারনা রাখুন

আপনাকে যদি কোন প্রশ্ন করে যে সেটার উত্তর যদি আপনার জানা থাকে তাহলে আনতাম না করে আপনি সরাসরি বলে দেন যে এ প্রশ্নের উত্তর আমার জানা নেই। অনেক সুন্দর করে বলবেন যে স্যার অথবা ম্যাডাম আমাকে প্রশ্ন উত্তর জানা নেই

কিছু টিপস তাড়াতাড়ি জেনে নিন

আত্মবিশ্বাস দেখান সোজা হয়ে বসুন আর হাসুন তবে খেয়াল রাখবেন বাসাতেই যেন মূর্তির মত না হয় আর হাসিটি অবশ্যই দাঁত বের করে বা শব্দ করে নয়। ইন্টারভিউ দিতে যাওয়ার সময় প্রথমে সালাম দিয়ে হাত মিলাতে পারেন যদি পরিস্থিতি সুন্দর হয় তাহলে প্রথমে হাত মেলানোর কোনো প্রয়োজন নেই আসার সময় সালাম দিয়ে সুন্দর ভাবে হাত মিলিয়ে তারপর বের হবেন। হাত-পা ছড়িয়ে বসবেন না, চুল ঠিক করে রাখার চেষ্টা করবেন, বারবার হাত দিয়ে মুখ মোছা থেকে বিরত থাকুন, ইন্টারভিউ দেওয়ার সময় মোবাইল ফোন অন রাখবেন না, আপনার CV তে যেন মিথ্যা কিছু না থাকে সে বিষয়ে লক্ষ্য রাখবেন।

চাকরির জন্য কি কি কাগজপত্র প্রয়োজন হয়

  • জন্ম সনদ কপি
  • ভোটার আইডি কার্ডের কপি
  • চরিত্রের পত্র কফি
  • জীবনবৃত্তান্ত কপি
  • পাসপোর্ট সাইজের দুই কপি ছবি
  • শিক্ষা পত্র ছবি
  • কাজের অভিজ্ঞতা
  • ড্রাইভিং লাইসেন্স এর কপি (যদি থাকে )
  • পাসপোর্ট এর কপি
  • কাগজ-কলম

তরুণেরা চাকরি না পাওয়ার কারণ কি ?

নতুনরা চাকরি না পাওয়ার প্রধান কারণ হচ্ছে তারা পড়ালেখা শেষ করার পরপরই বা চাকরির শুরুতেই তারা বেশি বেতনের চাকরী পাওয়ার কথা চিন্তা ভাবনা করে। সম্প্রতি কয়েকটি বেসরকারি ব্যাংকের নিয়োগ কার্যক্রম পর্যালোচনা করে দেখা গেছে হয়তো কোম্পানিতে পদ আছে ১৫ থেকে ২০ টি কিন্তু তাতে সিভি জমা পড়েছে এক থেকে দেড় লাখ। যার কারণে এখানে আপনার দক্ষ কর্মী নির্বাচন করে। এক্ষেত্রে যারা দক্ষ কর্মী তারাই চাকরি পায় এবং নতুনরা পিছিয়ে থাকে কারন নতুনরা চাকরির পাশাপাশি কোন ধরনের যোগ্যতা না থাকার কারণে তারা পিছিয়ে পড়ে থাকে। অনেক সময় দেখা যায় যে সব পরীক্ষায় পাশ হওয়ার পর যখন লিখিত পরীক্ষা নেওয়া হয় তখন দেখা যায় যে ইংরেজি ভাষায় কিছুই লিখতে পারছে না ।

নতুনরা কিভাবে চাকরি পাবে

নতুনরা কিভাবে চাকরি পাবে তরুণরা বা নতুনরা চাকরি পাওয়া পেতে হলে প্রধানত কয়টি বিষয়ে গুরুত্ব দিতে হবে সেগুলো হচ্ছে প্রথমত বেশি বেতনের চাকরির জন্য বসে না থাকে বিভিন্ন কোম্পানিতে চাকরি করে আগে চাকরির বিষয়ে যোগ্যতা অর্জন করে রাখা। আর দ্বিতীয়ত যে বিষয়টা অনেক গুরুত্বপূর্ণ সেটা হচ্ছে বিভিন্ন কাজের দক্ষতা অর্জন করে রাখা এবং কয়েকটি ভাষায় দক্ষতা অর্জন করে রাখা। আর তৃতীয় বিষয়টা হচ্ছে চাকরি পাশাপাশি অথবা পড়ালেখার পাশাপাশি যেকোনো একটি স্কিল এ সেরা হয়ে যাওয়া। মানে হাতের কাজ। এই ছোট ছোট সামান্য বিষয়ের গুরুত্ব দিলে তরুণরা বা নতুনরা চাকরি অনেক সহজে পাবে ।

Leave a Reply

Advertisements