গার্মেন্টস চাকরি বেতন ২০২৪| আজকের নতুন খবর

বাংলাদেশের প্রধান রপ্তানি খাত তৈরি পোশাক শিল্পের শ্রমিকদের ন্যূনতম মজুরি সাড়ে বারো হাজার টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। এটি কার্যকর হবে পহেলা ডিসেম্বর থেকে।

দীর্ঘদিন মানে কয়েক সপ্তাহ ধরে টানা শ্রমিক বিক্ষোভের পরে শ্রমিক ও মালিক প্রতিনিধিদের সাথে সরকারের আলোচনার পর এ ঘোষণা এলো।

এখানে শ্রমিক ও সরকারের সাথে আলোচনা করার পর সাড়ে আট হাজার টাকা থেকে বাড়িয়ে সাড়ে বারো হাজার টাকা করার প্রস্তাব দিয়েছে মালিকপক্ষ

এছাড়াও সন্ধ্যার সম্মেলনে জানানো হয় যে শ্রমিকের মজুরি কাঠামোতে পাঁচটি গ্রেট থাকবে মোট মজুরির মধ্যে মূল বেতন হবে ৬৩ শতাংশ তার মানে ১২৫০০ টাকা মোট মজুরির মধ্যে মূল বেতন হবে ৭৮৭৫ টাকা

বাংলাদেশ গার্মেন্টস চাকরির বেতন

বাংলাদেশ গার্মেন্টস চাকরির বর্তমানে বেতন নির্ভর করে চাকরির পদমর্যাদা অভিজ্ঞতা এবং দক্ষতার উপর সাধারণত গার্মেন্টস কর্মকারখানায় কর্মরত শ্রমিকদের বেতন প্রতি মাসে ৮ হাজার থেকে ২০ হাজার টাকা পর্যন্ত হয়ে থাকে তবে অভিজ্ঞ এবং দক্ষ কর্মীদের বেতন ২৫ হাজার টাকা বা তার কম বিষয় হতে পারে।

গার্মেন্টস চাকরির বেতন এবং কাঠামো

  • শ্রমিক ৮ হাজার থেকে ২০ হাজার টাকা
  • অপারেটর ১০ হাজার টাকা থেকে ২০ হাজার টাকা
  • সহকারী সুপারভাইজার ১৫০০০ টাকা থেকে ২৫ হাজার টাকা
  • সুপারভাইজার বিশ হাজার টাকা থেকে ৩০ হাজার টাকা
  • প্রধান সুপারভাইজার ২৫ হাজার টাকা থেকে ৪০ হাজার টাকা
  • ম্যানেজমেন্ট ত্রিশ হাজার টাকা থেকে ১ লক্ষ টাকা পর্যন্ত এবং তারও বেশি হতে পারে।

গার্মেন্টস চাকরির সুবিধা সমূহ

গার্মেন্টস চাকরি সুবিধার মধ্যে হচ্ছে বেতন ছাড়াও কর্মকর্তাদের সাধারণ ভাতা বোনাস এবং অন্যান্য সুবিধা প্রদান করা হয় কর্মচারীদের জন্য স্বাস্থ্য সেবা শিক্ষা এবং অন্যান্য সুযোগ-সুবিধা প্রদান করা হয় গার্মেন্টস কর কার কারখানাগুলোতে কর্মচারীদের জন্য পরিবহন সুবিধা প্রদান করা হয়।

গ্রেডবেতন (টাকা)
১৮,২৫৭
১৫,৪১৬
৯,৮৪৫
৯,৩৪৭
৮,৮৭৫
গার্মেন্টস চাকরি বেতন 2023

গার্মেন্টস চাকরির জন্য যোগ্যতা

আপনি যদি গার্মেন্টসে চাকরি করতে চান তাহলে আপনার সর্বনিম্ন এসএসসি বা সম্মানের শিক্ষার যোগ্যতার প্রয়োজন হবে।এছাড়াও এখানে আপনি নির্দিষ্ট একটি পদে চাকরি করার জন্য আপনার নূন্যতম কয়েক বছরের যোগ্যতা থাকতে হবে।

গার্মেন্টস চাকরির জন্য আবেদন

গার্মেন্ট চাকরির জন্য আবেদন করতে সাধারণত অনলাইনে বা সরাসরি কলকারখানায় আবেদন করতে হয়। অনলাইনে আবেদন করতে হলে কলকারখানা ওয়েবসাইটে গিয়ে আবেদন ফরম পূরণ করতে হবে। সরাসরি কল কারখানায় আবেদন করতে কলকারখানায় গিয়ে আবেদন পূরণ করতে হয়।

পোশাক সমীকের ন্যূনতম মজুরি ১৭৫৬৮ টাকা করার প্রস্তাব দিয়েছে গবেষণা প্রতিষ্ঠান সিডিপি এর আগে ২০১৮ সালে সর্বশেষ পোশাক সমিতির ন্যূনতম মজুরি ধরা হয়েছিল ৮ হাজার টাকা। মূল্যস্ফীতি এবং বাজারের বিভিন্ন দামের কারণে শ্রমিকের আতীন নিরাপত্তার ও বিবেচনা করে সিডিপি ০৯ হাজার ৫৭৮ টাকা বাড়িয়ে নতুনের ন্যূনতম মজুর প্রস্তাব দিয়েছিল।

সিডিপি বলেন শ্রমিকরা ন্যূনতম ১২ হাজার টাকা এবং সর্বোচ্চ ২১ হাজার টাকা পর্যন্ত মজুরি নিতে পারেন। এক্ষেত্রে শ্রমিকান অন্যতম ১৮ হাজার টাকা পর্যন্ত চেয়েছেন।

Advertisement
Advertisement

Leave a Comment